রামুর পাহাড় থেকে ১৩ কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
কক্সবাজারের রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের হাজিরপাড়া এলাকা থেকে ৪ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে খড়ের ভিতর লুকানো এসব ইয়াবা উদ্ধার করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আসাদুজ্জামান ব্যটালিয়ন সদরে শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায় সংবাদ সম্মেল করে বলেন, রাতে বিজিবির সদস্যরা গোপন সূত্রে ইয়াবা চালানের তথ্য পান। এরপর নাইক্ষ্যংছড়ি সদর থেকে ৪ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত রামুর কচ্ছপিয়ার হাজির পাড়া এলাকায় অবস্থান নেয় বিজিবি। সন্দেহভাজন স্থানে তল্লাশী চলিয়ে পাহাড়ের চূড়ায় খড়ের বিতরণ থেকে বিপুল ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে গননা করে ৪ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। যার বাজার মূল্য ১৩ কোটি ২০ লাখ টাকা। ধারণা করা হচ্ছে বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে পাচারকারীরা পালিয়ে গেছে। উদ্ধারকৃত ইয়াবা স্থানীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে জমার প্রস্তুতি চলছে।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আসাদুজ্জামান আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বিজিবির ডিজি মহোদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বিজিবি মাদকের বিরুদ্ধে, বিশেষ করে ইয়াবা চোরাচালানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। মাদকের পাশাপাশি সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অস্ত্র পাচার, কাঠ পাচার ও সন্ত্রাসী তৎপরতা বন্ধে বিজিবির এই তৎপরতা অব্যাহত থাকবে।