রামুতে কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভায় ঔষধ তত্ববধায়ক প্রিয়াংকা দাশ গুপ্তাঃ ঔষধ বিক্রয় পেশায় সেবার মনোভাব থাকতে হবে

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার জেলা ঔষধ প্রশাসনের ঔষধ তত্ববধায়ক প্রিয়াংকা দাশ গুপ্তা বলেছেন, ঔষধ বিক্রয় প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্তদের আর্থিক লাভের পাশাপাশি সেবার মনোভাব বজায় রাখতে হবে। কারণ এ ব্যবসার সাথে মানবসেবার বিষয় জড়িত রয়েছে। ঔষধ শিল্প আগের মত নেই। দিনদিন এ শিল্পের মান ও গুরুত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঔষধ শিল্পের উন্নয়নে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। তিনি বলেন, অবৈধ, মেয়াদ উত্তীর্ণ ও অনুমোদনবিহীন ঔষধ কোন মতেই বিক্রি করা যাবে না। ড্রাগ ও ট্রেড লাইসেন্স এর পাশাপাশি ঔষধ বিপণন প্রতিষ্ঠানে ফার্মাসিষ্ট থাকতে হবে। রামুসহ পুরো জেলার ঔষধ শিল্পের সমস্যা দূর করতে সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে। এজন্য ঔষধ বিক্রয় প্রতিষ্ঠান মালিকদেরও আন্তরিক হতে হবে।
সরকার স্বীকৃত ঔষধ ব্যবসায়িদের একমাত্র জাতীয় সংগঠন বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি রামু উপজেলা শাখার বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রæয়ারি) সকাল ১১টায় রামু স্বপ্নপুরী কমিউনিটি সেন্টারে এ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি রামু উপজেলা শাখার সভাপতি আবুল কাশেম খাঁন (একে খাঁন) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বার্ষিক প্রতিবেদন পাঠ করেন, বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি রামু উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও রামু চৌমুহনী বণিক সমবায় সমিতি লি. এর সাধারণ সম্পাদক আফসার কামাল। এতে বিশেষ ছিলেন, বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি কক্সবাজার জেলা শাখার সিনিয়র সহ সভাপতি মিজানুর রহমান ও সহ সভাপতি কনক কান্তি শর্মা।

চম্পক বড়ুয়া জুয়েল (সেবালয় মেডিকো) এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি রামু উপজেলা শাখার পক্ষে অধ্যাপক ছৈয়দ আকবর (খায়ের মেডিকো), মৌলানা আলী আকবর (হুমাইরা মেডিকো), শ্যামল কান্তি শর্মা (শ্যামল মেডিকো), সোহেল সাঈদ (নূর ফার্মেসী) প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি রামু উপজেলা শাখার সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে অতিথি ও সংগঠনের সদস্যবৃন্দ মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন।