বেলজিয়ামকে হারিয়ে ইতালির শুভসূচনা

স্পোর্টস ডেস্ক:

শক্তিশালী বেলজিয়ামকে ২-০ গোলে হারিয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে শুভসূচনা করেছে গতবারের রানার্স-আপ ইতালি। এই ম্যাচে আজ্জুরিরা নিজেদের রক্ষণ অক্ষত রেখে সুযোগ বুঝে প্রতিপক্ষের ওপর হামলার চিরাচরিত কৌশল অবলম্বন করে। সোমবার রাতে প্রথমার্ধে এমানুয়েলে গিয়াচ্চেরিনির গোলে এগিয়ে, শেষ মুহূর্তে গ্রাজিয়ানো পেল্লের গোলে জয় নিশ্চিত করে ইতালি।

লিওঁতে সোমবার রাতে প্রথম ১০ মিনিটের খেলায় অগোছালো ফুটবলের পর বেশ কিছুক্ষণ ইতালির রক্ষণে চাপ ধরে রাখে অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী বেলজিয়াম। খেলার ২৯ মিনিটে লিওনার্দো বোনুচ্চি ও গিয়াচ্চেরিনির দারুণ নৈপুণ্যে এগিয়ে যায় ইতালি। মাঝ মাঠের আগে থেকে বুনোচ্চির উঁচু করে বাড়ানো বল বক্সের বাইরে থেকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন বোলোনিয়ার মিডফিল্ডার গিয়াচ্চেরিনি। পিছিয়ে পড়েও তেমন কোনও গোছালো আক্রমণ করতে পারেনি বেলজিয়াম।

বিরতির পর ফের সহজ সুযোগ নষ্ট করে বেলজিয়াম। দারুণ এক প্রতি-আক্রমণে বিনা বাধায় ইতালির ডি বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন রোমেলু লুকাকু, কিন্তু তার বাঁকানো শটটি বুফ্নকে পরাস্ত করলেও ডান পোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে ম্যাচে ফেরার সহজ সুযাগ নষ্ট করেন মারোয়ানি ফেলাইনি। গোলমুখ থেকে বল জালে জড়াতে আলতো একটা টোকার দরকার ছিল, কিন্তু চরম ব্যর্থতার পরিচয় দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই মিডফিল্ডার।

যোগ করা সময়ে দারুণ এক গোলে জয় নিশ্চিত করেন ইতালির ফরোয়ার্ড পেল্লে। ‘গ্রুপ অব ডেথ’ হিসেবে বিবেচিত এ ‘ই’ গ্রুপের অন্য দুই দল রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড ও সুইডেনের মধ্যকার প্রথম ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে।

তারকার ছড়াছড়ি না থাকলেও ইতালি ও বেলজিয়াম দুটি দলই বর্তমানে ইউরোপের অন্যতম শক্তিশালী। সাফল্যের মাণদণ্ডে ইতালি যোজন যোজন এগিয়ে থাকলেও সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের বিচারে বেলজিয়াম বেশ এগিয়ে। ফলে তাদের হারিয়ে শেষ আটে ওঠার পথে বেশ খানিকটা এগিয়ে গেল গতবারের রানার্সআপ ইতালি।

[বাংলা ট্রিবিউন]