পেকুয়ায় কোন জঙ্গির স্থান হবে না: কমিউনিটি পুলিশিং কর্মশালায় ওসি

পেকুয়া প্রতিনিধি:
পেকুয়ায় কমিউনিটি পুলিশিং কর্মশালা অনুষ্টিত হয়েছে। ‘পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ নিজের নিরাপত্তা নিজেই নিশ্চিত করুন, কমিউনিটি পুলিশকে হ্যাঁ বলুন এ প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর কমিউনিটি পুলিশিং কর্মশালা

রবিবার, ১২ জুন দুপুর ১২টায় সম্পন্ন হয়েছে। কমিউনিটি পুলিশ পেকুয়া সদর ইউনিয়নের উদ্যোগে এই কর্মশালার অনুষ্টিত হয়।

পেকুয়া সমবায় কমিউনিটি সেন্টার অনুষ্টিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন পেকুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ জিয়া মো.মোস্তাফিজ ভুঁইয়া।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি হানিফ চৌধুরীর সঞ্চালনায় এ অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করেন কমিউনিটি পুলিশ পেকুয়া সদরের সদস্য সচিব ও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি আজম খান।

এতে বক্তব্য রাখেন পেকুয়া বাজার কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ’এর সভাপতি হাজ্বি আকতার আহমদ, সেক্রেটারী মিনহাজ উদ্দিন, চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি রেজাউল করিম মিন্টু, উপজেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ বারেক, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক নাছির উদ্দিন, ছাত্রলীগ সভাপতি কপিল উদ্দিন বাহাদুর।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পেকুয়া থানার এসআই বিমল কান্তি নাথ, হোসনে আরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তফা আলী, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জসিম উদ্দিন, উপজেলা সৈনিকলীগ সভাপতি সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম হিরু, মাষ্টার মাহবুল আলম, মাষ্টার মোজাম্মেল হক, মাষ্টার আবুল কালাম, ব্যববসায়ী সমিতির নেতা শাহেদ ইকবাল, আ’লীগ নেতা আমিরুল খালেদ, নুরুল ইসলাম, ফরিদুল আলম, কাইসার, মো.বাচ্চু, নুরুজ্জামা, যুবলীগ নেতা বাদশাহ, আছাদুল হক, শাহজাহান, ছাত্রলীগ নেতা আমিনুর রশিদ, ফারুখ, নওশা মিয়া প্রমুখ।

প্রধান অথিতির বক্তব্যে পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়া মোঃ মোস্তাফিজ ভূঁইয়া বলেন, পেকুয়ায় জঙ্গির স্থান হবে না। অন্য জায়গা থেকে এসেও এখানে জঙ্গিরা আশ্রয় নিতে পারবে না। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রসাশন জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। বক্তব্যে তিনি এই বিষয়ে স্থানীয় সচেতন মহলের সহযোগিতাও কামনা করেন।