মেসি-সুয়ারেসের গোলে বার্সার দাপুটে জয়

ক্রীড়া ডেস্কঃ
দারুণ ছন্দে এগিয়ে চলা লিওনেল মেসি স্পর্শ করলেন অনন্য এক মাইলফলক। আর জোড়া গোল করলেন লুইস সুয়ারেস। তাতে এইবারকে উড়িয়ে দিল বার্সেলোনা।

কাম্প নউয়ে রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় লা লিগার ম্যাচটি ৩-০ গোলে জেতে এরনেস্তো ভালভেরদের দল।

ম্যাচের ১৯তম মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে দলকে এগিয়ে দেন সুয়ারেস। ফিলিপে কৌতিনিয়োর বাড়ানো বল ডি-বক্সে প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার।

এনিয়ে এইবারের বিপক্ষে শেষ ছয়বারের দেখায় প্রতিটিতেই জালের দেখা পেলেন সুয়ারেস।

২৭তম মিনিটে এইবারের স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড সের্হি এনরিখের হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৪৩তম মিনিটে ডি-বক্সে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার রুবেন পেনার চ্যালেঞ্জে কৌতিনিয়ো পড়ে গেলে পেনাল্টির জোরালো আবেদন করে বার্সেলোনা; তবে রেফারির সাড়া মেলেনি।

দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে ডি-বক্সে সুয়ারেসের ছোট পাস ধরে কোনাকুনি একটু এগিয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি। এরই সঙ্গে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে স্পেনের শীর্ষ প্রতিযোগিতায় ৪০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।

চলতি লিগে এই নিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে জালের দেখা পেলেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার। এই সময়ে মোট আটটি গোল করেছেন তিনি। আর আসরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতার এটি ১৭তম গোল।

৫৫তম মিনিটে সতীর্থের ব্যাক-হিলে বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে গোল করার মতো জায়গা থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন মেসি।

এর পরমুহূর্তেই দ্বিতীয় গোলের দেখা পান সুয়ারেস। স্প্যানিশ ডিফেন্ডার সের্হিও রবের্তোর পাস ধরে ডি-বক্সে ডান দিকের দুরূহ কোণ থেকে বল ঠিকানায় পাঠান ৩১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। এবারের লিগে এটা তার চতুর্দশ গোল।

শেষ দিকে ফরাসি ফরোয়ার্ড উসমান দেম্বেলে দ্রুত ডি-বক্সে ঢুকে মেসিকে পাস দিয়েছিলেন। কিন্তু বল ঠিকমতো নিয়ন্ত্রণেই নিতে পারেননি তিনি, ব্যবধানও আর বাড়েনি।

১৯ ম্যাচে ১৩ জয় ও চার ড্রয়ে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। লেভান্তেকে ১-০ গোলে হারানো আতলেতিকো মাদ্রিদ ৫ পয়েন্ট কম নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

আথলেতিক বিলবাওয়ের মাঠে ২-০ গোলে হারা সেভিয়া ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে।