পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকারের নেওয়া পদক্ষেপে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ছে। বুধবার সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে এক প্রশ্নে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের নেওয়া পদক্ষেপে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।

শেখ হাসিনা বলেন, “মানুষ ন্যায় বিচার পাচ্ছে। ফলশ্রুতিতে শান্তিপূর্ণ ও স্বাভাবিকভাবে দেশি-বিদেশি নাগরিকগণ তাদের জীবন-যাপন ও ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকার ফলে দেশে সন্ত্রাসবাদ এবং জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে।”

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে সংসদ নেতা বলেন, “দেশের আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় বৈদেশিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাচ্ছে, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং দেশের অর্থনৈতিক ভিত্তি দৃঢ়তর হচ্ছে।”

তরিকত ফেডারেশনের এমপি এম এ আউয়ালের প্রশ্নে তিনি আরও বলেন, কূটনীতিক ও বিদেশি নাগরিকদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও গোয়েন্দা কার্যক্রম বাড়ানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “জঙ্গি, সন্ত্রাসী, নাশকতামূলক, ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ রয়েছে- এমন ব্যক্তিদের কর্মকাণ্ড ও গতিবিধি সম্পর্কে গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। “জঙ্গি ও সন্ত্রাসীসহ সব অপরাধীর কর্মকাণ্ড রোধে তাদের যোগানদাতা ও অর্থের উৎস সন্ধান করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।” আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করে সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সন্ত্রাসী হামলা সংক্রান্ত মামলার রহস্য উদঘাটনে সফলতার পরিচয় দিয়েছে বলে এসময় প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

চট্টগ্রাম-৩ আসনের এমপি মাহফুজুর রহমানের প্রশ্নে আসন্ন ঈদুল ফিতরে যানজটমুক্ত নির্বিঘ্ন যাতায়াতের জন্য সরকারের নেওয়া পদক্ষেপ তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

গতবারের চেয়ে এবারের ঈদুল ফিতরে জনসাধারণ আরও স্বাচ্ছন্দে, আনন্দঘন পরিবেশে ও নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

[বিডিনিউজ]