নাইক্ষ্যংছড়ির শিক্ষক দিদারের মায়ের মৃত্যু : জানাজা সম্পন্ন

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
নাইক্ষ্যংছড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গর্জনিয়া ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি দিদারুল আলমের মা নূর আয়েশা বেগম চলে গেছেন না ফেরার দেশে। শুক্রবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ১০টায় গর্জনিয়া উচ্চবিদ্যালয় মাঠে মরহুমের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

আগের দিন বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় ৭৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান। নূর আয়েশা বেগম নয় ছেলে ও তিন কন্যার জননী। জানাজা নামাজে ইমামতি করেন মরহুমার ছেলে, গর্জনিয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নবিউল আলম। নামাজের আগে মায়ের জন্য সকলের কাছ থেকে দোয়া কামনা করেছেন দিদারুল আলম।

জানাজায় কেন্দ্রীয় বিএনপির মৎস্যজীবি বিষয়ক সম্পাদক ও কক্সবাজার ৩ (সদর-রামু) আসনের সাবেক সাংসদ লুৎফুর রহমান কাজল, গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পাঁচ বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান ছুরুত আলম চৌধুরী, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম, গর্জনিয়ার আমির আলি চৌধুরী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবু বক্কর, শিক্ষানুরাগী হাবিব উল্লাহ চৌধুরী, সেলিম উল্লাহ চৌধুরী, উত্তর বাইশারী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবদুল গফুর, রামু উপজেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সহসভাপতি জাবেদ ইকবাল, রামু উপজেলা যুবদলের সভাপতি মির্জা নুরুল আবছার, সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার ইসলাম, গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ ইউছুপ, গর্জনিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবদুল আলিম, সাধারণ সম্পাদক মো. মুহিবুল্লাহ, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি দিদারুল আলম, গর্জনিয়ার সামাজ সেবক ইস্কান্দর মির্জা, মুহিবুল্লাহ চৌধুরী জিল্লু, শাহারিয়ার ওয়াহেদ চৌধুরী রাসেল, সাংবাদিক হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নুরুল আলমসহ সর্বস্থরের মানুষ অংশ নেন।