রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে তাদের স্বাধীনতা দিতে হবে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
রিলিজিয়ন ফর পিস (আরএফপি) মিয়ানমার চ্যাপ্টারের চেয়ারপারসন ইউ মিন্ট স্যুয়ে বলেছেন, মিয়ানমারে মুসলমান ও খৃস্টানদের সাথে যে দ্বন্দ্ব সংঘাত চলছে, তা ধর্মীয় নয় বরং রাজনৈতিক সংঘাত। দীর্ঘদিন সামরিক শাসনের অধীনে সেখানে উগ্রবাদের বিস্তার ঘটেছে। জনগণ ধৈর্যচ্যুত হয়েছে। ভালোবাসার অনুভূতি হারিয়ে ফেলেছে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে হলে তাদের চলাফেরার স্বাধীনতা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও উন্নয়নের কর্মসূচি নিতে হবে। কাউকে পশ্চাদপদ রেখে সেখানে শান্তি প্রতিষ্ঠা কঠিন। উন্নয়নের মাধ্যমেই শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এ জন্য আমরা রিলিজিয়ন ফর পিস মিয়ানমারের পক্ষ থেকে স্ট্যাট কাউন্সিলর অং সান সুচিকে জাতীয় পুনর্গঠনের কথা বলেছি। আমাদের প্রস্তাবনা বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে রিলিজিয়ন ফর পিস (আরএফপি) বাংলাদেশ চ্যাপ্টার আয়োজিত ‘ওয়ার্ল্ড পিস থ্রো ইন্টারফেইথ অ্যান্ড ইন্ট্রাফেইথ ডায়লগ’ শীর্ষক দুদিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনের প্রথম দিনে তিনি এসব কথা বলেন।

ইউ মিন্ট স্যুয়ে বলেন, আমি সংঘাতময় বুদ্ধিরাম, মাউন্ডং ও রাখাইন এলাকা পরিদর্শন করেছি। রাখাইনের রোহিঙ্গারা ৮০ ভাগ দরিদ্র জনগোষ্ঠী। তাদের শিক্ষা নেই, চিকিৎসা নেই। তারা আইনের শাসন থেকে বঞ্চিত। তাই রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে হলে তাদের চলাফেরার স্বাধীনতা, শিক্ষা স্বাস্থ্য ও উন্নয়নের কর্মসূচি নিতে হবে।

এ জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। বলেন, দেশে ও দেশের বাইরে ইসলাম ও ক্রিশ্চিয়ানিটি নিয়ে মিয়ানমার আজ প্রশ্নের মুখোমুখি। সেখানে যে দ্বন্দ্ব চলছে মিয়ানমারের শান্তিপ্রিয় জনগণ তার জন্য দঃখিত। মিয়ানমারের জনগণ শান্তি চায়।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রফেসর ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসাইন। বক্তব্য রাখেন ইনডেনিয়াস পিপলস সংসদীয় গ্রুপের প্রধান ফজলে হোসেন বাদশা, এরএফপি এশিয়া গ্রুপের মডারেটর ও ইন্দোনেশিয়ান মুসলিম স্কলার প্রফেসর ড. এম দ্বীন শামসুদ্দিন, আরএফপি এশিয়া গ্রুপের সেক্রেটারি জেনারেল রেভারেন্ড নোবুহিরু মাসাহিরো নেমোতো, আরএফপি অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারপারসন প্রফেসর ডেসমন্ড ক্যাহিল, চীনের সিসিআরপি প্রতিনিধি ওয়াং ওয়েজি, আরএফপি ইন্ডিয়ার মহাসচিব এন বাসুদেব, প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান প্রমুখ।

সেমিনারে সভাপত্বি করেন আরএফপি বাংলাদেশ চেয়ারপারসন প্রিন্সিপাল সুকোমল বড়ুয়া, স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. আবু বকর।