রামু সেনানিবাসে সশস্ত্র বাাহিনী দিবস পালিত

বার্তা পরিবেশকঃ
রামু সেনানিবাসে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এরিয়া সদর দপ্তর কক্সবাজার ও ১০ পদাতিক ডিভিশনের উদ্যোগে, কক্সবাজারস্থ নৌ-ফরওয়ার্ড বেইস এবং কক্সবাজার বিমানাঘাঁটির সমন্বয়ে সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০১৮ উদযাপন করা হয়েছে।

২১ নভেম্বর বিকালে রামু সেনানিবাসে আয়োজিত সশস্ত্র বাহিনী দিবসের এক সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও কক্সবাজার এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান পিএসসি। অনুষ্ঠানে কক্সবাজারের সংসদ সদস্যবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, বতর্মান ও অবসরপ্রাপ্ত সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা ও সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, ‘এই পর্যন্ত সশস্ত্র বাহিনীর যা কিছু অর্জন ও সাফল্য, তা সম্ভব হয়েছে সশস্ত্র বাহিনীর উপর সরকারের আস্থা ও প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা, অসামরিক প্রশাসনের আন্তরিক সহযোগিতা এবং দেশের সকল নাগরিকের গভীর ভালেবাসার মাধ্যমে।’

প্রধান অতিথি মুক্তিযুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মহান মুক্তিযুদ্ধের সকল মহান শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও তাদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, ‘আমি আশ্বস্ত করতে চাই, কক্সবাজার অঞ্চলের সশস্ত্র বাহিনীর সকল সদস্য দৃঢ়তার সাথে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ যে, অনাগত দিনগুলিতে আমরা দেশ ও মানুষের পাশে থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব ও মর্যাদাকে অক্ষুন্ন রাখতে যে কোন ত্যাগের জন্য প্রস্তুত থাকবো।’

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা কক্সবাজার অঞ্চলের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা উপহার তুলে দেন।

রামু সেনানিবাসে তিন বাহিনীর সমন্বয়ে আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠান এই অঞ্চলের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সামরিক-অসামরিক সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে প্রত্যাশা করা হয়।