আবেগ ছুঁয়ে গিয়েছিল মুমিনুলকে

ক্রীড়া ডেস্কঃ
এমনিতে মাঠের ভেতরে বাইরে আবেগের বশ হতে খুব বেশি দেখা যায় না মুমিনুলকে। মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনে ফিফটির পর তো ব্যাটই তুললেন না। কিন্তু সেঞ্চুরির পর তার উপযাপন নজর কাড়ল বেশ। মুমিনুল জানালেন, আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন বলে বুঝে উঠতে পারছিলেন না কি করবেন।

আগের ৮ ইনিংসে ৬৯ রান করে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে মাঠে নেমেছিলেন মুমিনুল। একটি বড় ইনিংস ছিল ভীষণ জরুরি। শুরুর বিপর্যয়ের সঙ্গে লড়াই করে যখন ফিফটি করলেন, সামান্যতম উদযাপনও করেননি।

দিন শেষে মুমিনুল জানালেন, ব্যাটিংয়ের ভেতর এতটাই ডুবে গিয়েছিলেন যে উদযাপনের কথা মাথায় আসেনি।

“আমি আর মুশফিক ভাই এত ফোকাসড ছিলাম যে ফিফটি হয়েছে, এটা ভাবনায় ছিল না। তখনও পর্যন্ত আসলে যতক্ষণ খেলা হয়েছে, উইকেট পড়তে পারে যে কোনো সময়, এরকম ব্যাপার ছিল। পরিস্থিতির কারণেই আসলে উদযাপন করা আসলে ভুলে গিয়েছিলাম। এত গভীরে ঢুকে গিয়েছিলাম, কি করতে হবে না করতে হবে, ভুলে গিয়েছিলাম।”

সেঞ্চুরির পর সেই মুমিনুলকেই দেখা গেল অন্যরকম। একটু ক্ষণের জন্য যেন নিজেকে হারিয়ে ফেলেছিলেন। সেঞ্চুরি হওয়ার পর শুরুতে ড্রেসিং রুমের দিকে ছুটে যাচ্ছিলেন। হুট করেই আবার নিজেকে সামলে নেন। ব্যাট উঁচিয়ে ধরেন। নিজেকে সমর্পন করেন উইকেটে তার সঙ্গী মুশফিকুর রহিমের আলিঙ্গনে। জানালেন, আবেগ থেকেই বুঝতে পারছিলেন না তাৎক্ষনিকভাবে কি করবেন।

“এক সময় আমরা কঠিন পরিস্থিতিতে ছিলাম, সেখান থেকে দলকে বের করার চাপ ছিল। একশ করার পর মনে হলো, এখন হয়তো চাপ থেকে বের হয়ে গেলাম। একশ করলে এমনিতেই আবেগ কাজ করে। আমার ভেতরও কাজ করছিল। কীভাবে কি করব, বুঝে উঠতে পারছিলাম না। খুব আবেগ কাজ করছিল।”