নারী ও পুরুষদের জন্য কোন মাল্টিভিটামিন উপকারী?

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ
মাল্টিভিটামিন হচ্ছে এক ধরনের সাপ্লিমেন্ট যাতে নানা ধরনের খনিজ, ভিটামিন এবং অন্যান্য পুষ্টি উপাদান থাকে। অনেকেই খাবারে ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করতে না পেরে বিকল্প হিসাবে মাল্টিভিটামিন খান। এই মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট, ক্যাপসুল, পাউডার, লিকুইড, ইনজেকশন আকারে হয়।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে কোন ধরনের মাল্টিভিটামিন নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য উপকারী? এখানে এ বিষয়ে কিছু ধারণা দেওয়া হল।

পুরুষের নানা ধরনের ভিটামিন ও খনিজ প্রয়োজন হয়, যেমন-

ভিটামিন এ :
ভিটামিন এ পুরুষের চোখের স্বাস্থ্য, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং শক্তি বজায় রাখে।

ভিটামিন সি :
এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরকে রেডিকেলমুক্ত থাকতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে এটি যেকোন ধরনের অসুখ এবং ইনফেকশন থেকে বাঁচায়। ভিটামিন সি ত্বক মসৃণ ও টানটান রাখে।

ম্যাগনেশিয়াম :
পুরুষের শরীরে ম্যাগনেশিয়াম নামক খনিজটির প্রয়োজনীয়তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি পরিপাকে সহায়তা ও মস্তিষ্ক সুরক্ষা করে। সেই সঙ্গে মাংসপেশী গঠনে ভূমিকা রাখে।

সেলেনিয়াম :
উপাদানটি পুরুষের কর্মশক্তি ও উর্বরতা বজায় রাখে। সেলেনিয়াম থাইরয়েডের ঝুঁকিও যেমন কমায় তেমনি সেল গঠনেও সাহায্য করে।

কিছু পার্থক্য থাকলেও নারীর শরীরেও প্রায় একই ধরনের ভিটামিন ও খনিজ প্রয়োজন। যেমন-

ভিটামিন এ :
ত্বকের উজ্জ্বলতা বজায় রাখা, বিভিন্ন অসুস্থতা রোধ করা এবং নানা ধরনের ইনফেকশন প্রতিরোধ করার জন্য নারীর ভিটামিন-এ খাওয়া প্রয়োজন হয়। এছাড়া দৃষ্টিশক্তি ভাল রাখতেও ভিটামিন এ দরকার আছে।

ভিটামিন সি :
ত্বকের জন্য ভিটামিন সি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া এটি সেল ধ্বংস রোধসহ নারীদের দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে।

ক্যালসিয়াম :
নারীর হাড় গঠন ও হাড় ক্ষয় রোধের জন্য ক্যালসিয়াম খুবই দরকারী। মেনোপোজের আগে ও পরে তাদের শরীরে ক্যালসিয়াম ঘাটতি তৈরি হয়।

ফলিক এসিড :
নারীদের শরীরে বেড়ে ওঠা ভ্রুণের জন্য ফলিক এসিড বিশেষ দরকারী উপাদান। সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড