সেল্তা ভিগোকে হারিয়ে জয়রথে রিয়াল

ক্রীড়া ডেস্কঃ
করিম বেনজেমার গোলে এগিয়ে যাওয়া রিয়াল মাদ্রিদের ব্যবধান দ্বিগুণ হয় আত্মঘাতী গোলে। দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুই গোল করে সেল্তা ভিগোর মাঠ থেকে সহজ জয় নিয়ে ফেরে সান্তিয়াগো সোলারির দল।

লা লিগার ম্যাচে রোববার রাতে ৪-২ গোলে জেতে রিয়াল। তাদের বাকি দুই গোলদাতা সের্হিও রামোস ও দানি সেবাইয়োস।

এ নিয়ে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ সোলারির অধীনে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা চার ম্যাচ জিতল রিয়াল।

সেল্তা ভিগোর মাঠে দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত রিয়াল। কিন্তু আলভারো ওদ্রিওসোলার কাট ব্যাকে বেনজেমার নেওয়া নিচু শট ফেরান গোলরক্ষক। একাদশ মিনিটে গ্যারেথ বেলের হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে যায়।

১৯তম মিনিটে কর্নারে তুরস্কের মিডফিল্ডার ইয়োকুসলুর হেড পোস্টে লেগে না ফিরলে এগিয়ে যেতে পারত সেল্তাও।

লুকা মদ্রিচ-বেনজেমার মিলিত প্রচেষ্টায় ২৩তম মিনিটে এগিয়ে যায় রিয়াল। ক্রোয়েশিয়ার মিডফিল্ডারের লম্বা করে বাড়ানো বল অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভিক্তোরিয়া প্লজেনকে ৫-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়া ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন বেনজেমা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ইয়াগো আসপাসের হেড পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে বেরিয়ে গেলে হতাশ হতে হয় সেল্তা সমর্থকদের। ৫০তম মিনিটে বেনজেমার শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে লাগে ক্রসবারে।

৫৬তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় রিয়াল। ডিফেন্ডারদের ভুলে বল পেয়ে ডান দিক থেকে বেনজেমার নেওয়া শট গোলরক্ষকের পা ছুঁয়ে কাছের পোস্টে লাগার পর আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার গুস্তাভো কাবরালের গায়ে লেগে জালে জড়ায়।

৬১তম মিনিটে স্পেনের মিডফিল্ডার মেনদেসের বাড়ানো ক্রসে উগো মায়োর নেওয়া ভলি দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ালে ম্যাচে ফেরে সেল্তা। একটু পর আসপাসের শট ফিরিয়ে রিয়ালকে এগিয়ে রাখেন থিবো কোর্তোয়া।

৮৩তম মিনিটে স্পট কিকে ব্যবধান আরও বাড়ান রিয়াল অধিনায়ক রামোস। ওদ্রিওসোলা ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। শেষ দিকে সেবাইয়োসের শট জাল খুঁজে পেলে বড় জয় নিশ্চিত হয়ে যায় রিয়ালের। যোগ করা সময়ে সেল্তাকে ব্যবধান কমানো দ্বিতীয় গোল এনে দেন মেনদেস।

নিজেদের মাঠ কাম্প নউয়ে রিয়াল বেতিসের কাছে ৪-৩ গোলে হারা বার্সেলোনা ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। ২৩ করে পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে সেভিয়া দ্বিতীয়, আতলেতিকো মাদ্রিদ তৃতীয় ও আলাভেস চতুর্থ স্থানে আছে। ২০ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে রিয়াল।