পৌর নির্বাচন টেকনাফ: অবশেষে মেয়র পদে লড়ছেন দুই প্রার্থী

টেকনাফ প্রতিনিধি:
আসন্ন ২৫ মে টেকনাফ পৌর নির্বাচনে সকল জলপনা কল্পনা শেষে মেয়র পদে দুই প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী এরা হচ্ছেন, আওয়ামীলীগের একক মনোনীত নৌকার মাঝি হাজী মোহাম্মদ ইসলাম ও নারিকেল গাছ নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফারুক বাবুল।

সকাল থেকে পৌর এলাকায় অলিতে গলিতে এই চিত্র দেখা যায়, পোষ্টার লাগানো, গণসংযোগ ও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছে প্রার্থীরা।

উলেখ্য, আগামী ২৫ মে নির্বাচনে মেয়র পদে বর্তমান মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম, সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মুহাম্মদ ইসমাঈল, জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ হাশিম ও ফারুক বাবুল মোট ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।

২ মে বাছাইয়ে মোঃ হাশিম ও ফারুক বাবুলের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়।

এরপর ৮ মে মেয়র পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

সর্বশেষ ৯ মে সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো: ইসমাঈল নিজের ইচ্ছায় মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

এর প্রেক্ষিতে টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার কক্সবাজার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মোজাম্মেল হোসেনের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে স্মারক নং-১৭.০৩.২২০০.০০০.৩৮.০০৩.১৬-২৫৯ মুলে লিখিতভাবে হাজী মোহাম্মদ ইসলামকে বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় মেয়র নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়।

অপরদিকে গত ২ মে সতন্ত্র প্রার্থী ফারুক বাবুলকে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন স্বাক্ষর সমস্যা দেখিয়ে মনোনয়ন বাতিল করে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন। পরে ৫ মে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ড. অনুপম সাহার কাছে প্রার্থীতা বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করেন তিনি। আপিল শুনানী শেষে প্রার্থীতা মৌখিকভাবে বৈধতা দিলেও রহস্যজনক কারণে লিখিত আদেশ দেননি।

৯ মে রবিবার ফারুক বাবুল উচ্চ আদালতের একটি বেঞ্চে ৫৭২৪ নং রীট পিটিশন দায়ের করেন। ১৫ মে উচ্চ আদালতের বিচারক ওবাইদুল হাসান ও কৃঞ্চদেব নাথের বেঞ্চে ফারুক বাবুলের বৈধতার আদেশ দেয়া হয়।

এদিকে এই নিবার্চনকে ঘিরে ভোটারদের মাঝে চলছে আলোচনা সমালোচনা। কেউ বলছেন নিবার্চন পিছিয়ে যাবে, কেউ বলছেন নিবার্চন ২৫ মে সম্পন্ন করা হবে।