টেকনাফে সাংবাদিক হামলার প্রতিবাদে রামু প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা

রামু প্রতিনিধি:
টেকনাফে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলায় ৫ জন সাংবাদিকের ওপর নির্মম হামলার প্রতিবাদে রামু প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার ১৫ মে সকাল ১১টায় রামু প্রেসক্লাবে এ প্রতিবাদ সভা করেন রামুর সাংবাদিকরা।

সভায় সাংবাদিক হামলায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে তিন দিনের প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষনা করেছেন রামু প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সোমবার সকাল ১১টায় রামু চৌমুহনী চত্বরে প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন, মঙ্গলবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান।

প্রতিবাদ সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, হামলাকারী ব্যক্তিরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণায়য়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী। দিনদুপুরে সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালালেও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেননি। আহত সাংবাদিকরা টেকনাফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালেও টেকনাফ থানার কোনো কর্মকর্তা আহত সাংবাদিকদের সাথে ঘটনা সম্পর্কে কথা বলতে যাননি।

সভায় সাংবাদিকরা বলেন, গত শুক্রবার টেকনাফে জেলার ছয়জন সাংবাদিক সংবাদ সংগ্রহে যান। পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাঁধা দিয়ে তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল হক ভূট্টো ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

হামলাকারীরা সাংবাদিকদের ভিডিও ক্যামেরা ও ল্যাপটপ ছিনিয়ে নিয়ে যায় এবং সাংবাদিক বহনকারী মাইক্রোবাসেও ভাঙচুর করে।

অবিলম্বে টেকনাফে সাংবাদিকের ওপর হামলার সঙ্গে জড়িত ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল হক ভূট্টো ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান রামু প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ সহ স্থানীয় সাংবাদিকরা। সাংবাদিক হামলায় দায়ীদের গ্রেফতার করা না হলে সাংবাদিকরা আরো কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলেও হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

রামু প্রেসক্লাব সভাপতি নুরুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুনীল বড়ুয়ার সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, আমির হোসাইন হেলালী, দর্পণ বড়ুয়া, খালেদ শহীদ, নীতিশ বড়ুয়া, এইচ বি পান্থ, এস মোহাম্মদ হোসেন, এম আবদুল্লাহ আল মামুন, সোয়েব সাঈদ, খালেদ হোসেন টাপু, আল মাহমুদ ভূট্টো, ওবাইদুল হক নোমান, হাসান তারেক মুকিম, আবুল কাশেম, অর্পন বড়ুয়া, মো. আবু বক্কর ছিদ্দিক, হাফেজ আবুল মনজুর, আহমদ ছৈয়দ ফরমান, মোহাম্মদ জুবাইদ, গোলাম মওলা প্রমুখ।