উখিয়ার রাজাপালংয়ে ২ চৌধুরী পরিবারের মর্যাদার লড়াই

শহিদুল ইসলাম, উখিয়া।
কক্সবাজারের উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের ২ চৌধুরী পরিবারের মর্যাদার লড়াই শুরু হয়েছে। পাশাপাশি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপির আধিপত্য ধরে রাখার কৌশলে নেমেছে। ইতিমধ্যে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির একক প্রার্থী চূড়ান্ত করেছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

রাজাপালং ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ৩৩ হাজার ৬৩৪ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১৭ হাজার ২৩৮ জন। তৎমধ্যে মহিলা ভোটার ১৬ হাজার ৩৯৬ জন। সাধারণ ভোটারদের ধারণা লড়াই হবে সেয়ানে সেয়ানে। উভয় চৌধুরী পরিবারের প্রার্থীরা দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ অব্যাহত রেখেছেন। ২ রাজনীতিবিদকে নিয়ে মানুষের মাঝে কৌতুহলের অন্ত নেই।

আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা বলছেন উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী পুণরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবে। রাজাপালং ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড করেছেন। দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপির নেতাকর্মীরা হারানো গদি ফিরে পেতে কোমর বেধে মাঠে নেমেছে। বিএনপির একাধিক নেতাকর্মী নাম না প্রকাশ করা শর্তে বলেন সুষ্ঠ নির্বাচন হলে বিএনপির একক প্রার্থী তারেক মাহমুদ চৌধুরী জয়লাভ করবেন। এখনো পর্যন্ত উভয় প্রার্থীর বড় ধরনের শোডাউন দেখা যায়নি।

অন্যান্য নির্বাচনের চেয়ে এ নির্বাচন ব্যতিক্রম। কারণ এ প্রথম দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হচ্ছে। প্রতিবারেই উভয় পরিবারের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে লড়াই করেন। ক্ষমতার পালাবদলে চেয়ারম্যান পদটি হাত-বদল হয়। এর বাইরে কোন দিন হয়নি।

উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদির সহযোগীতায় ইতিমধ্যে রাজাপালং ইউনিয়নে রাস্তাঘাট, স্কুল-কলেজ, কালভার্ট সহ ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড করা হয়েছে। সততা ও নিষ্ঠার সাথে বিগত ৫ বছর ধরে মানুষের সেবা করেছি। কারো কোন অর্থ আত্মসাৎ করিনি। স্বাভাবিক ভাবে আমি শতভাগ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হব।

উপজেলা বিএনপির একক প্রার্থী তারেক মাহমুদ চৌধুরী রাজিব তার বক্তব্যের ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে কোন ধরনের মন্তব্য করতে রাজি নয়।