নশিপুর ইউনিয়ন আ’লীগ অফিসে ককটেল বিস্ফোরণঃ এমপিপুত্র জয়কে প্রধান অভিযুক্ত করে মামলা

আল আমিন মন্ডল:
বগুড়া গাবতলীর নশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসে ককটেল বিস্ফোরণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নশিপুর ইউনিয়ন আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনিরের বাদীত্বে দায়েরকৃত মামলায় সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুর ছেলে সাজ্জাদুজ্জামান সিরাজ জয়’কে প্রধান অভিযুক্ত করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ সেপ্টেম্বর রাত অনুমান ১১টা ৪০মিনিটে গাবতলীর নশিপুর ইউনিয়ন আ’লীগ কার্যালয়ে পরপর ২টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত ৮সেপ্টেম্বর নশিপুর ইউনিয়নের হোড়ারদিঘী গ্রামের আলহাজ্ব মোখলেছুর রহমানের ছেলে মনিরুজ্জামান মনির বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

অন্যান্য অভিযুক্তরা হলেন, সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান মোরশেদ মিল্টন, পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম, থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক নতুনসহ বিএনপি ও অঙ্গদলের ৯৪জন। এ মামলায় অজ্ঞাত করা হয়েছে আরও ৩০/৪০জনকে।

এ ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাগবাড়ী ফাঁড়ির ইনচার্জ সোহেল রানা বাগবাড়ী বাজার থেকে মানিক মিয়া (২৮) নামের এক শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত মানিক নশিপুর ইউনিয়নের নিজগ্রাম এলাকার আজিজার রহমানের ছেলে।

এ ব্যাপারে সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু জানান, দেশের গণতন্ত্র’কে হত্যা করতে সরকার বিএনপি’কে নির্বাচন থেকে দুরে সরে রেখে একতরফা ভাবে নির্বাচন করার নিলনকশা বাস্তবায়ন করার লক্ষে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে বিএনপির নেতা-কমীদের উপর হয়রানী করার উদ্দেশ্যেই মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।