রামু বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের সংলাপ অনুষ্ঠিত

সোয়েব সাঈদঃ
বিশেষ প্রতিনিধি, আমাদের রামু ডটকমঃ

সংবাদপত্রে নৈতিবাচক কর্মকান্ডের খবর বেশি প্রচার করা হচ্ছে। এর ফলে নতুন প্রজন্মের ইতিবাচক চিন্তাধারাও প্রভাবিত হচ্ছে। তাই ইতিবাচক সংবাদ পাঠে যেমন গুরুত্ব দিতে হবে তেমনি প্রকাশেও সংবাদ মাধ্যমকে দায়িত্বশীল হতে হবে। মেধাবী প্রজন্ম গঠনে সংবাদ মাধ্যমগুলোকে শিক্ষাবান্ধবও হতে হবে।

রামুর অনন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়োজিত শিক্ষার্থী সংলাপে বিদ্যালয়টির ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বিষয়ে পক্ষে এবং বিপক্ষে তুলে ধরেন এমন প্রাণবন্ত ও সময়োপযোগি বক্তব্য।

সংলাপে শিক্ষা বিষয়ক আলোচনায় শিক্ষার্থীরা বলেন, কেবল এ প্লাস পাওয়া মানেই চৌকষ শিক্ষার্থী নয়। চৌকষ শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয়ের পড়ালেখার বাইরেও অধিক জ্ঞান আহরণ করতে হবে। অর্জন করতে হবে সমৃদ্ধ জীবন গঠনের সকল উপাদান।

ব্যতিক্রমী এ আয়োজনে বিদ্যালয়ের দুই শতাধিক ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষক, সাংবাদিক এবং অভিভাবকরা অংশ নেন।

বৃহষ্পতিবার ৫ মে বেলা ২ টায় বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, রামু উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার আবু তৈয়ব।

index

বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক ও রামু কলেজের সহকারী অধ্যাপক ইজত উল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে রাজারকুল মনসুর আলী সিকদার আইডিয়াল স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও রাজারকুল আজিজুল উলুম মাদরাসার নির্বাহী পরিচালক মাওলানা মোহছেন শরীফ, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুনীল কুমার শর্মা, রামু প্রেস ক্লাবের অর্থ সম্পাদক সোয়েব সাঈদ, অভিভাবক জুয়েল বড়ুয়া, শিক্ষক সুমন বড়ুয়া প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

শিক্ষার্থী সংলাপ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন, বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শাখাওয়াত সুলতান, অসীম বড়ুয়া, আশীষ কুমার দাশ, কমল কান্তি দাশ, জেসমিন আকতার, সুরজিত পাল, অধীর কান্তি দাশ ও আসমা তুল এলা।

বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইজত উল্লাহ জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল মেধার বিকাশ, যুক্তি প্রয়োগ ও খন্ডনের প্রবণতা তৈরি, অন্যের সাথে ব্যবহারের সক্ষমতা অর্জন এ আয়োজনের অন্যতম লক্ষ্য।