‘মুসলমানদের ৯৫ বছরের দাবি পূরণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী’

অনলাইন ডেস্কঃ
দেশের মুসলমানদের জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছে ইসলামিক ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘ইসলাম ও মানবতার উন্নয়নে দেশব্যাপী কার্যক্রম’ শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করে সংগঠনটি। এতে ঢাকার বিভিন্ন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, অধ্যাপক, খতিব ও ইসলামিক চিন্তাবিদরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি সাবেক সচিব মো. মতিউর রহমান বলেন, “প্রধানমন্ত্রী চতুর্দিক থেকে তার সেবা কার্যক্রম চালু রেখেছেন।গত ৯৫ বছর ধরে এই দেশের মুসলমানদের যে দাবি, একটি ইসলামী ও আরবি বিশ্ববিদ্যালয়…তিনি সেটি আমাদের উপহার দিয়েছেন।

“এছাড়াও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাঁচ শতাধিক মসজিদ গড়ে দিয়েছেন তিনি। শিশুরা যাতে ইসলামের শিক্ষা থেকে বিচ্যুত না হয়ে যায় তার জন্য তিনি মক্তব চালু করে দিয়েছেন।”

সেমিনারে প্রধান অতিথি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সিদ্দীকুর রহমান মিয়া বলেন, “ইসলামের হক রয়েছে, সেই হককে বুঝতে হবে। সেই হক অনুসারে জীবন পরিচালনা করতে হবে। মহানবীর দেখানোর পথ ধরে চলতে হবে।”

মাওলানা ফখরুল ইসলাম আশেকীর সঞ্চালনায় সেমিনারে ঢাকা নেসারিয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা কাফিল উদ্দীন সরকার সালেহী, ইস্ট লন্ডন জামে মসজিদের সাবেক খতিব আব্দুল কাইয়ুম আল আযহারী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল কাদের, আহসানিয়া মিশনের সুফিজমের অধ্যাপক শাইখ মুহাম্মাদ ওসমান গণী, নেসারিয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রধান মুহাদ্দীস আল্লামা আব্দুল ওয়াদুদ, উত্তর বাড্ডা আলিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রধান মুহাদ্দীস আল্লামা বদিউল আলম সরকার, দারুন্নাজাত সিদ্দীকিয়া কামিল মাদ্রাসার মুহাদ্দীস মুফতী ওসমান গণী সালেহীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্রঃ বিডিনিউজ