ছাত্রলীগের শীর্ষ পদ প্রত্যাশীদের ডেকেছেন হাসিনা

অনলাইন ডেস্কঃ
সম্মেলনের দেড় মাস পর কমিটি গঠন করতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীদের ডেকেছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় গণভবনে তিনি পদপ্রত্যাশী সব নেতার সঙ্গে কথা বলবেন বলে সংগঠনের সদ্য বিদায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন জানিয়েছেন।

গত ১১ ও ১২ জুন ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় দিনে কাউন্সিলের পর কমিটি ঘোষণার রেওয়াজ থাকলেও শীর্ষ পদের জন্য নেতৃত্ব বাছাইয়ে সময় নেওয়া হয়।

কেন্দ্রীয় সম্মেলনের আগে গত ২৪, ২৬ ও ২৯ এপ্রিল যথাক্রমে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, উত্তর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সম্মেলন হয়। গুরুত্বপূর্ণ এই তিনটি শাখার কমিটি কখন ঘোষণা হবে তা এখনও স্পষ্ট নয়।

ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী ৩২৩ জন সম্পর্কে বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজ-খবর নেওয়ার পর তাদের ডাকা হচ্ছে। গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের এই সাক্ষাতের পরেই নতুন কমিটি ঘোষণা হতে পারে বলে আশা করছেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে ছাত্রলীগের সাবেক নেতা এবং বর্তমানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির একজন নেতা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের অভিভাবক। তিনি নিজেই ছাত্রলীগের দেখভাল করেন। পদ প্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলে নতুন কমিটি দেওয়ার নির্দেশনা ৪ তারিখই দেবেন।”

আর জাকির হোসেন বলেন, ৪ জুলাই সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীদের গণভবনে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

“তিনি সবার সঙ্গে কথা বলে ওই দিনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।”

২০১৫ সালের ২৬ ও ২৭ জুলাই সাইফুর রহমান সোহাগকে সভাপতি এবং জাকিরকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন হয়েছিল। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ দুই বছর হলেও প্রায় তিন ব্ছর পর নতুন কমিটি আসছে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ