কক্সবাজারে সেলফি তোলা নিয়ে বিবাদে পিটিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্কঃ
কক্সবাজার সদরে সেলফি তোলা নিয়ে বিবাদের জেরে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে একদল লোক। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত পাঁচজন।

রোববার সন্ধ্যায় খুরুশকূল ইউনিয়নের গেইল্ল্যা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান কক্সবাজার সদর থানার ওসি খন্দকার ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী।

নিহত আবছার কামাল ওরফে কালাপুতু (৪০) একই এলাকার ছৈয়দ নূরের ছেলে। আহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

এ ঘটনায় খুরুশকূল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনকে (৪০) আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের স্বজন ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি ফরিদ বলেন, সন্ধ্যা ৬টার দিকে খুরুশকূল ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনের এক শ্যালিকাকে নিয়ে ভাতিজা মো. মনসুর মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। তারা গেইল্ল্যা পাড়ায় পৌঁছলে সেখানে নেমে মোবাইলে সেলফি তুলতে থাকেন।

ওসি বলেন, এ সময় সেখানে স্থানীয় বেলাল উদ্দিনসহ ২/৩ জন যুবক তাদের লক্ষ্য করে কটূক্তি করেন। এ নিয়ে মনসুর প্রতিবাদ করলে দুপক্ষের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে তারা মনসুরকে টানাহেঁচড়া করে। মনসুর বাড়ি ফিরে বিষয়টি স্বজনদের অবহিত করেন।

ওসি বলেন, এরপর মনসুরের বেশ কয়েকজন স্বজন বেলাল উদ্দিনের বাড়ি গিয়ে খোঁজ করতে থাকেন। কিন্ত তাকে না পেয়ে তার চাচা আবছার কামাল ওরফে কালাপুতুকে তারা কিল-ঘুষি, লাথি ও লাঠি দিয়ে মারধর করেন। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে তাদেরও মারধর করা হয়।

“পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আবছার কামালকে মৃত ঘোষণা করেন।”

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনকে থানায় আনা হয়েছে বলে জানান ওসি ফরিদ।

ওসি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ