লামায় অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ১৪ মিয়ানমার নাগরিক আটক

লামা প্রতিনিধি :

বান্দরবানের লামা উপজেলায় ১৪জন মিয়ানমারের নাগরিককে আটক করেছে স্থানীয়রা। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) সকালে লামা পৌর শহরের মিশনঘাট এলাকা থেকে ৮টি মোটর সাইকেলে চড়ে রূপসীপাড়া ইউনিয়নের দূর্গম মংপ্রু পাড়ায় পৌঁছালে তাদের কথাবার্তা সন্দেহজনক হওয়ায় স্থানীয়রা তাদের আটক করে পার্শ্ববর্তী সেনা ক্যাম্পে হস্তান্তর করে।

আটককৃতরা হলো- মো. সেলিম, মনির হোসেন, নুর হাবিব, ছৈয়দ হোসেন, মো. আমিন, আবু ছৈয়দ, মো. আবদুলাহ, মো. রফিক, মো. হোসেন, মো. আলম, মুছা আলী, রকিন, ইসমাইল, আতা উল্লাহ।

এসময় ওই রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশে সহযোগিতার অভিযোগে সাহাবুদ্দিন নামে এক তরুনকেও আটক করা হয়। সাহাবুদ্দিন কক্সবাজার জেলার পেকুয়া উপজেলার টইটং এলাকার মিরাজ মিয়ার ছেলে। আটক সাহাবুদ্দিন জানায়, সে আলীকদম বাজারের কাঠ ব্যবসায়ী রাণী বেগমের লামা খালের আগায় দূর্গম কুরিং পাড়ার বাগানে লাকড়ি সংগ্রহের কাজে ওই রোহিঙ্গাদের নিযুক্ত করেছিল। মোটরসাইকেল চালক মোহাম্মদ শাহীন ও জিল্লুর রহমান জানান, চকরিয়া উপজেলার বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের হেব্রোণ মিশন এলাকা থেকে শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল যোগে দালাল সাহাব উদ্দিনসহ ১৪ জন রূপসীপাড়া ইউনিয়নের দূর্গম মংপ্রু পাড়ায় যান।

এ সময় কথা বার্তায় সন্দেহ হলে তাদেরকে আটক করে রূপসীপাড়াস্থ সেনাবাহিনীর নিকট হস্তান্তর করে স্থানীয়রা। এ বিষয়ে লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, রোহিঙ্গা আটকের ঘটনা শুনেছি। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।