রামুর কাউয়ারখোপে কলাগাছ রোপন করে প্রতীকী প্রতিবাদ জানিয়েছে আওয়ামীলীগের একাংশের সমর্থকরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী রাজনীতির বাইরের ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেয়ার খবরে রামুর কাউয়ারখোপে কলাগাছ রোপন করে প্রতীকী প্রতিবাদ জানিয়েছেন নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন না পাওয়া মোস্তাক আহমদ সমর্থীত কর্মীরা।

কক্সবাজারের রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী হিসেবে সদ্য অবসরপ্রাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ সচিব শফিউল আলম নৌকা প্রতীকে প্রার্থী হচ্ছেন এমন খবরে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন না পাওয়া মোস্তাক আহমদ সমর্থীত কর্মীরা সড়কের দু’পাশে কলাগাছ রোপন করে এ প্রতীকী প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল-সমাবশে করেছেন।

শুক্রবার ২২ এপ্রিল সন্ধ্যায় কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ ও সহযোগি- অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা কলাগাছ রোপন করে এ প্রতীকী প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।

কাউয়ারখোপ বাজারে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ হাসান মেম্বার, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ, ছাত্রলীগ সভাপতি ছানাউল্লাহ বাবুল, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম, শ্রমিকলীগ সভাপতি ওমর ফারুক, তাঁতীলীগ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সেচ্ছাসেবকলীগ ১নং ওয়ার্ড় সভাপতি আবুল মনছুর প্রমুখ।

সভায় নেতা-কর্মীরা হাইব্রিড নেতার বিরুদ্ধে শ্লোগান দিয়ে এই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করতে যোগ্য ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান।

শনিবার ২৩ এপ্রিল দুুপুরে কাউয়ারখোপ ইউনিয়নে সরেজমিন পরিদর্শনে গেলে দেখা যায়, রামু-নাইক্ষ্যংছড়ি সড়কের কাউয়ারখোপ বাজার, মইশকুম এলকা, কাউয়ারখোপ-উখিয়ার ঘোনা সড়ক, মনিরঝিল-রামু সড়কের দু’পাশে শত শত কলাগাছ রোপন করা হয়েছে।

মোস্তাক আহমদের কর্মী-সমর্থকরা জানান, শফিউল আলম কোন সময়েই আওয়ামীলীগের কর্মী ছিলেন না।

কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ জানান, আওয়ামী রাজনীতির বাইরের ব্যক্তিকে নৌকা প্রতীক দেয়ার খবরে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে নেতাকর্মীরা। বিক্ষুদ্ধ কর্মীরা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে সড়কের দু’পাশে পাঁচ হাজারের বেশি কলা গাছ রোপন করে প্রতীকী প্রতিবাদ জানায়।

তিনি দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমদকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী করলে বিজয় নিশ্চিত হবে বলে দাবি করেন।