দেখার কেউ নেই-

কক্সবাজারের রামু উপজেলার প্রধান বানিজ্যিক কেন্দ্র চৌমুহনী স্টেশনের সবচে জনগুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টের দৃশ্য এটি। চৌমুহনী থেকে পূর্বদিকে বৌদ্ধ মন্দির সড়কে ঢোকার মোড়েই চোখে পড়বে ময়লা-আবর্জনার এ স্তুপ। যেখানে ময়লা ফেলার সেই ডাস্টবিনটিও এখন ডাস্ট (ময়লা)। অথচ এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করছে দেশী-বিদেশী অসংখ্য পর্যটক। শুধু তাই নয়, অনেকটা ময়লার স্তুপের উপরই বসেছে খাদ্য সামগ্রীসহ বিভিন্ন পণ্যর পসরা। কিন্তু দেখার কেই নেই।

চৌমুহনীকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য রামু ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুলের উদ্যোগে এই স্টেশনের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ডাস্টবিন বসানো হয়েছিলো। সেদিন স্কুলের কোমলমতি শির্ক্ষাথীরা নিজেরা ময়লা-আবর্জনা পরিস্কার করতে করতে ব্যাবসায়ীদের কাছ থেকে ডাস্টবিনের বাইরে ময়লা না ফেলার অঙ্গিকারও আদায় করে। কিন্তু বছর পূর্ণ না হওয়ার আগেই ব্যবসায়ীদের অসচেতনতা এবং উদাসীনতার কারণে সেই ডাস্টবিনই এখন ডাস্টে পরিণত হয়েছে। ভেস্তে গেছে স্কুলটির মহৎ উদ্যোগ।

 

ছবিগুলো মঙ্গলবার (২ জানুয়ারী) দুপুরে তোলা।

ছবি ও প্রতিবেদন-সুনীল বড়ুয়া।