গর্জনিয়ায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের ইন্তেকাল : জানাজা সম্পন্ন

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নের জাউচপাড়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক মাওলানা সোলতান আহমদ (৭৩) গত শনিবার ভোর চারটায় চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি ছয় ছেলে ও চার মেয়ে রেখে গেছেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি জাউচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে সোলতান আহমদ একই বিদ্যালয়ের পাশাপাশি মাঝিরকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত ছিলেন।

শনিবার (১৬ডিসেম্বর) বাদে আসর জাউচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মরহুমের জানাজা নামাজ অনুষ্টিত হয়। পরে স্থানীয় কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। জানাজা নামাজে ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে ঘিলাতলী বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ইয়াহিয়া খালেদ। জানাজা নামাজের পূর্বে, গর্জনিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও মরহুমের নাতী মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন-গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শিক্ষক নেতা নজরুল ইসলাম, মাওলানা সাইফুল ইসলাম, মরহুমের ছেলে জাউচপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক লুৎফুর রহমান প্রমূখ।
জানাজা নামাজে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক আবুল কাশেম মো.ফজলুল হক, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা মোক্তার আহমদ, হাবিব আহমদ, গর্জনিয়ার ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ছুরুত আলম চৌধুরী, গর্জনিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এএইচএম মনিরুল ইসলাম, আইনজীবি সালাহ উদ্দিন আহমেদ, গর্জনিয়ার সামাজসেবক ইচকান্দার মির্জা, মুহিবুল্লাহ চৌধুরী জিল্লু, শাহরিয়ার ওয়াহেদ চৌধুরী রাসেল, রামু উপজেলা প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের আহবায়ক আমজাদ আলী খাঁন, সদস্যসচিব হেলাল উদ্দিন, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার কক্সবাজার জেলা সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান, কক্সবাজার সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জাকের হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসাইনসহ সর্বস্থরের মানুষ অংশ নেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here