‘গর্জনিয়ায় চার মাসের মধ্যে ঘরে ঘরে পিডিবির আলো জ্বলবে’

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
রামুর গর্জনিয়ায় আগামী চার মাসের মধ্যে ঘরে ঘরে পিডিবির আলো জ্বলবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে.কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদ। তিনি শনিবার (১৮ নভেম্বর) বিকেল চারটায় গর্জনিয়া ইউপি কার্যালয় সংলগ্ন টাইমবাজার চত্ত্বরে ইউনিয়নের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় ওয়ার্ক অডার দেখিয়ে ওই ঘোষণা দেন। সর্বস্থরের জনতার ব্যানারে সভা হয়। কক্সবাজার জেলায় একাত্তর ইউনিয়নের মধ্যে চির অবহেলিত গর্জনিয়া। বিদ্যুৎ না থাকায় ব্যবসা-বাণিজ্য থমকে আছে। রাত নামলেই ইউনিয়নজুড়ে নেমে আসে অন্ধকার। তাই চার মাসের মধ্যে ঘরে ঘরে পিডিবির আলো ঢুকার খবরে সভাস্থল করতালিময় হয়ে উঠে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কউক চেয়ারম্যান আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়ন করছেন। তারই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সকল ভেদাভেদ ভুলে উন্নয়নের স্বার্থে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এ ক্ষেত্রে পোকামাকড় থাকলে চলবে না। পর্যায়ক্রমে রামুর উখিয়ারঘোনা-গর্জনিয়া সড়ক, ঐতিহাসিক সম্রাট শাহসূজা সড়ক, এবং ঘিলাতলী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবকাঠামোর উন্নয়ন সাধন করা হবে। পাশাপাশি নৌকার পক্ষে সর্বমহলকে কাজ করতে হবে। সংসদ নির্বাচনে বঙ্গকন্যা যাকে মনোনয়ন দিবেন তাঁর পক্ষে আমরা কাজ করবো। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল।

গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইউছুফের সভাপতিত্বে এবং সমাজ ও গণমাধ্যমকর্মী হাফিজুল ইসলাম চৌধুরীর প্রানবন্ত সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কক্সবাজার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সহকারি প্রকৌশলি মাহবুবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুজন শর্মা, সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুছ রানা চৌধুরী, কক্সবাজার সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল হক চৌধুরী রিকো, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী তানজিদ পাশা, গর্জনিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ছুরুত আলম চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা হাবিব উল্লাহ চৌধুরী, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গির আলম সিকদার, সহসভাপতি জাকের আহমদ, মনজুর ইসলাম, ফয়েজ উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শঙ্কর শর্মা, গর্জনিয়ার আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আমিন, গর্জনিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি মহিউদ্দিন সিকদার, আবছার কামাল প্রমূখ।

এদিকে গর্জনিয়ার উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে আয়োজিত ওই আলোচনা সভায় গর্জনিয়ার বর্তমান কোন জনপ্রতিনিধি উপস্থিত না থাকায় প্রধান ও বিশেষ অতিথি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাঁরা বলেছেন, চেয়ারম্যান-মেম্বাররা এলাকার উন্নয়ন চাননা বলেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বলে কথা দিয়েও উপস্থিত হননি। এটা দু:খজনক।