সংস্কৃতির ছড়া

শাহারীয়ার ওয়াহেদ
গর্জনিয়া,রামু।

শুকনো মরিচ পান্তাভাত
নববর্ষে অপূর্ব স্বাদ,
কোর্তা আর হলুদ শাড়ী
আনন্দ হয় বাড়ী বাড়ী ।

নারিকেল,চিনি,বিন্নি ভাত
মিশিয়ে নিয়ে এক সাথে,
মরিচ চাটনী অল্প তাতে
ঝাল না হয় বেশি যাতে ।

গ্রামীণ চ্যাকের রঙ্গিন শাড়ী
বাশেঁর,ছনের,ছোট্ট বাড়ী,
নাকের নোলক কানের দুল
গ্রাম্য পিরিত নানান ফুল ।

কলসী নিয়ে গ্রামের বধু,
ঝোপের ভেতর পোকাঁর মধু
নদীর ঘাটে সুরের বাশিঁ
কৃষক ভাইয়ের ফসলের হাসি ।

পূজো,ঈদ, বুদ্ধপূর্ণিমা, বড়দিন
ভাষা সৈনিকদের প্রেমের ঋণ,
মুক্তিযোদ্ধার প্রাণের ভিত
বাংলা স্মৃতি লক্ষ শহীদ ।

বাংলা জুড়ে সারা বছর
সবুজ-শ্যামল হাজার ছবি
পশ্চিম পাড়ার রশিদ দাদা
দার্শনিক আর অল্প কবি ।

লালনগীতি ভাটিয়ালী শোন
হিন্দি-উর্দূ দূর দূর,
কত আছে ভাব-বাউল
বাংলা ই আমার মধুর সুর।

বারমাসে তের পার্বণ
ধর্ম-কর্ম হাজার রীতি
বিদেশ হতে ধার নিওনা
এসব মোদের সংস্কৃতি ।