`কোন অস্ত্র ব্যবসায়ী গর্জনিয়ার নৌকার মাঝি হতে পারবে না’

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, স্টাফ রিপোর্টার
আমাদের রামু ডটকম :
রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল বলেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কারও ব্যক্তি বিশেষের সংগঠন নয়। এ সংগঠন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় পরিচালিত হয়। এতে বিভ্রান্ত হওয়ার কিছুই নেয়। এক শ্রেণির মহল এ পরিধি থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছে। তারা রামুতে আওয়ামীলীগের সভা-সমাবেশ পন্ড করার চেষ্টাও অব্যাহত রেখেছে।

মঙ্গলবার ১২ এপ্রিল বিকেল ৫টায় রামু উপজেলার গর্জনিয়ায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভার প্রধান অধিবেশনে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী তৃণমূল থেকে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী বাছাই করার দায়িত্ব উপজেলা ও জেলা আওয়ামীলীগের। এ ক্ষেত্রে অন্য কারও হাত নেই। কিন্তু দু:খ লাগে সম্প্রতি গর্জনিয়ায় একটি বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠান শেষ করে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নিয়মের বাইরে গিয়ে কথিত ব্যক্তি বিশেষের ব্যানারে একজনকে নৌকার প্রার্থী করা হবে বলে কৌশলে রেজুলেশন করা হয়েছে। যেখানে উপজেলা তথা জেলা আওয়ামীলীগের বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই।

উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বলেন, যারা নৌকার প্রার্থী হতে চান, তাদেরকে আওয়ামীলীগের মূল স্রোতে এসে রাজনীতি করতে হবে। আসন্ন গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অতিতে যারা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী হত্যাকান্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল, দখল বাজিতে লিপ্ত আছে, যারা শিবিরের ক্যাডার ছিল এবং অস্ত্র ব্যবসায়ী কোন সিন্ডিকেটের সদস্যকে আওয়ামীলীগ সভানেত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা নৌকার মাঝি করবেন না।

সোহেল সরওয়ার কাজল বলেন, গর্জনিয়ার এ বিশেষ বর্ধিত সভা পন্ড করার জন্য একটি মহল ষড়যন্ত্র চালিয়েছিল। কিন্তু তারা ব্যর্থ হয়েছে। আর এসব লোক কখনো আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী দাবি করতে পারে না। তারা সেই গ্রেনেড হামলাকারীদের অনুসারী। এদের বিষয়ে সবাইকে স্বোচ্ছার ও সতর্ক থাকতে হবে।

Gorjonia-2

বক্তব্যের পর তিনি মোহাম্মদ ইউছুপকে সভাপতি ও শংকর শর্মাকে সাধারণ সম্পাদক করে গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নতুন কমিটি ঘোষনা করেন।

এসময় সোহেল সরওয়ার কাজল বলেন, বিগত ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের ২০ তারিখে ফরিদ আহমদ চৌধুরীকে আহবায়ক ও আয়ুব সিকদারকে যুগ্ন-আহবায়ক করে তিন মাসের জন্য ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা বিগত দুই বছরেও কোন সভার আয়োজন করতে পারেনি। পালন করেনি বহু গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় দিবস। এ ব্যর্থতার কারণে তৃণমূল আওয়ামীলীগ তার নিজস্ব গতি হারিয়ে গড়ে তুলতে পারেনি স্থানীয় নেতৃত্ব। বর্তমানে ইউপি চেয়ারম্যান ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী দলে যোগদান করায় অন্ধকার থেকে আলোর পথ দেখতে শুরু করেছে গর্জনিয়ার আওয়ামী রাজনীতি।

প্রথম অধিবেশন শেষে দ্বিতীয় অধিবেশনে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নবগঠিত কমটির সভাপতি মোহাম্মদ ইউছুপের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শংকার শর্মার প্রাণবন্ত পরিচালনায় এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শামশুল আলম মন্ডল, সহ-সভাপতি তপন বড়ুয়া, আলহাজ্ব সোলতান আহমদ চৌধুরী, হানিফ বিন নজির, নুরুল ইসলাম বকুল, আওয়ামীলীগনেতা ও গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক ও রামু প্রেসক্লাব সভাপতি নুরুল ইসলাম সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল হক চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা ছৈয়দ আহমদ কালু,

ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, কাউয়ারখোপ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শফিউল আলম, গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আহমদ শাহ বাবুল, ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আজিজ, আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল ইসলাম, ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি এহেছান উল্লাহ, ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল আজিম, সাধারণ সম্পাদক গোলাম কাদের, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নুরুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক মনির আহমদ, ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহ আলম, ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ ইউছুপ ও ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নাছির উল্লাহ চৌধুরী প্রমূখ।

Gorjonia-3

আলোচনা সভা শেষে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছেন, আওয়ামীলীগ নেতা ও গর্জনিয়ার বর্তমান চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী, বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইউছুপ, আওয়ামীলীগ নেতা ইয়াহিয়া চৌধুরী, ও উপজেলা যুবলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আবছার কামাল।

প্রধান অতিথি চার জনের নাম কেন্দ্রে পাঠাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কেন্দ্র থেকেই এ চার জনের মধ্যে যেকোন এক জনকে নৌকার প্রার্থী করা হবে। তবে যে নৌকার প্রতীক পাবে তার পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান প্রধান অতিথি।

অনুষ্ঠানে তৃণমূল আওয়ামীলীগের দুই শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।