বেতার শিল্পী সমন্বয় পরিষদ নেতৃবৃন্দের সাথে মত বিনিময়ে আরডি মাহফুজুল- কক্সবাজার বেতারকে আরো জনপ্রিয় করতে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হবে

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
বাংলাদেশ বেতার কক্সবাজার কেন্দ্রের নবাগত আঞ্চলিক পরিচালক মো.মাহফুজুল হক বলেছেন,বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের কারণে কক্সবাজার এখন দেশের আকর্ষনীয় পর্যটন নগরী। একদিকে পর্যটন নগরী অন্যদিকে সীমান্ত শহর, আরো আছে উপকূলীয় এলাকার বিশাল জনগোষ্টী,তাই এতদ অঞ্চলে বেতারের গুরুত্ব অপরিসীম। এসব মাথায় রেখেই বেতারের সামগ্রিক অনুষ্ঠানের মান উন্নয়ন,উপকূলীয় অধিবাসীসহ সর্বস্থরের শ্রোতাদের মাঝে বেতারকে আরো জনপ্রিয় করতে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। তিনি অতীতের নানা অনিয়ম-অব্যবস্থাপনা কাটিয়ে বেতারকে এগিয়ে নিতে সবার সহযোগিতা চান।

সোমবার (৭ আগস্ট) সকালে কক্সবাজার বেতার শিল্পী সমন্বয় পরিষদের কর্মকর্তাদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত ও মত বিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকের শুরুতেই বেতার শিল্পী সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক,সংগীত প্রযোজক অধ্যাপক রায়হান উদ্দিনের নেতৃত্বে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ নবাগত আঞ্চলিক পরিচালক মো.মাহফুজুল হককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এ সময় নবাগত সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান) কাজী মো. নুরুল করিম ও জিল্লুর রহমানকেও ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন নেতৃবৃন্দ।

মতবিনিময়কালে বেতার শিল্পী সমন্বয় পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে বেতারের নাট্য প্রযোজক, কক্সবাজার শব্দায়ন আবৃত্তি একাডেমীর পরিচালক জসীম উদ্দিন বকুল,নাট্য প্রযোজকও কক্সবাজার থিয়েটার এর নাট্য নির্দেশক স্বপন ভট্টাচার্য,সংগীত প্রযোজক বশিরুল ইসলাম,সংগীত প্রযোজক দ্বীপলাল চক্রবর্তী, বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী মো. শাহা আলম (আলম শাহ),নাট্য শিল্পী সুশান্ত পাল বাচ্চু,অনুষ্ঠান ঘোষক নীলোৎপল বড়ুয়া,তৌফিকুল ইসলাম লিপু, রেডিও এনাউন্সারস ক্লাবের নব নির্বাচিত সভাপতি অনুষ্ঠান ঘোষক ও সংবাদ পাঠক সুনীল বড়ুয়া ও সাধারণ সম্পাদক,অনুষ্ঠান ঘোষক মো. শহিদুল ইসলাম।

মত বিনিময়কালে বেতার শিল্পী সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ নবাগত আঞ্চলিক পরিচালককে অতীতে দীর্ঘ সময় ধরে রেকডিং বন্ধ রাখা, শিল্পী সম্মানী নিয়ে পুকুর চুরিসহ নানা অনিয়ম-অব্যবস্থাপনা এবং শিল্পীদের নানা বঞ্চনার কথা তুলে ধরেন। তবে সবার সহযোগিতায় সকল সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন নবাগত আঞ্চলিক পরিচালক।