লংগদু সহিংসতা: ১৬ আসামি কারাগারে

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:

রাঙামাটির লংগদুতে পাহাড়িদের বাড়িঘরে আগুন দেওয়ার ঘটনায় ‘ক্ষতিগ্রস্ত’ এক ব্যক্তির মামলায় ১৬ আসামিকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

রোববার রাঙামাটি জেলা জজ আদালত পুলিশের পরিদর্শক রঞ্জন সামন্ত এ কথা জানান।

গত ১ জুন খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের চার মাইল (কৃষি গবেষণা এলাকা সংলগ্ন) এলাকা থেকে যুবলীগের লংগদু সদর ইউনিয়ন শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক নূরুল ইসলাম নয়নের লাশ উদ্ধার হয়।

পরদিন তার লাশ নিয়ে লংগদু সদরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। এক পর্যায়ে কিছু লোক তিনটিলা পাড়া, বাইট্রাপাড়া, উত্তর ও দক্ষিণ মানিকজুড় এলাকায় পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে আগুন দেয়।

৩ জুন ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও চারশ জনকে আসামি করে একটি মামলা করে পুলিশ। ১০ জুন ‘ক্ষতিগ্রস্ত’ কিশোর চাকমা ৯৮ জনের নাম উল্লেখ করে আরেকটি মামলা করেন ।

পরিদর্শক রঞ্জন বলেন, বাড়িঘরে আগুন দেওয়ার ঘটনায় কিশোর চাকমার মামলার ১৬ আসামি রাঙামাটির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. মহসেন আলীর আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

লংগদু থানার এসআই মামলার বাদী দুলাল হোসেন জানান, দুই মামলায় এর আগে বিভিন্ন সময়ে আটক হয়েছে ৩০ জন। এ নিয়ে মোট ৪৬ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

১৬ আসামি হলেন- জিয়ারুল, সাদ্দাম হোসেন, লিমন, জামাল, লোকমান, নজর আলী, জবর আলী, শহিদ, মাসুদ, সোহেল রানা, কালাম, দেলোয়ার হোসেন (প্রাক্তন ইউপি সদস্য), আবদুল সত্তার, নাছির উদ্দিন, আবু ও মোহাম্মদ রাসেল।