ডাঃ ভাগ্যধন বড়ুয়ার কবিতা

চোরাবাঁশি

বাঁশিও তরঙ্গ তোলে জলে আর মনে
চোরাবাঁশি টান মারে বেনামি প্রহরে
প্রকাশ্যে নিখুঁত দেহ ভেতরে অঙ্গার
বনের আগুন বুঝি বাতাসের বেগ।

সন্ধ্যায় একাকী হলে মনোব্যথা জাগে
নীরব কম্পন তোলে সুরের মায়ায়
এমন আনন্দী রাগ আগেতো শুনিনি
এমন পাঁজর নাড়া কখনো বুঝিনি!

জলের আয়নায় দেখি তার মুখ ভাসে
কাঁপা কাঁপা ঢেউ চোখ-মুখ-ছবি
যত চাই জোড়া দিতে ততই তরঙ্গ
তৃষিত দরিয়া রাগে অসহ্য জোয়ারে!

গভীর আকুতি জমা অন্তরীক্ষ মাঝে
বাঁশির বয়ান কাগজের ভাঁজে

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here