সর্বশেষ সংবাদঃ

‘ফেইসবুকের উচিৎ সংবাদ প্রকাশককে অর্থ দেওয়া’

প্রযুক্তি ডেস্ক:
সঠিক সংবাদ প্রচার নিয়ে ফেইসবুক যদি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে থাকে তবে তাদের উচিৎ প্রকাশকদের অর্থ পরিশোধ করা- এ মন্তব্য করেছেন ‘মিডিয়া মুঘল’ হিসেবে খ্যাত রুপার্ট মারডক।

ভুল তথ্য ছড়ানো নিয়ে সামাজিক মাধ্যমগুলোর উপর চাপ বাড়ছে। এমন সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটির প্রচেষ্টার প্রসঙ্গে এ মন্তব্য করেছেন মারডক, বলা হয় বিবিসি’র প্রতিবেদনে। এ খবর প্রকাশের আগের সপ্তাহে ফেইসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা ব্যবহারকারীদের মধ্যে জরিপ চালাবে আর ‘বিশ্বাসযোগ্য’ সংবাদ প্রকাশকদের খবরকে প্রাধান্য দেবে।

টাইমস আর সানসহ একাধিক সংবাদমাধ্যমের নিয়ন্ত্রক মারডক ফেইসবুকের এই প্রস্তাবনা ‘পর্যাপ্ত নয়’ বলেও মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, কেবল নেটওয়ার্ক অপারেটরগুলো যেভাবে টিভি চ্যানেলগুলোকে অর্থ পরিশোধ করে ঠিক সেভাবেই সামাজিক মাধ্যমগুলোর উচিৎ প্রকাশকদের অর্থ দেওয়া।

“প্রকাশকরা অবশ্যই তাদের সংবাদ আর কনটেন্ট দিয়ে ফেইসবুকের মূল্য আর বিশুদ্ধতা বাড়াচ্ছে, কিন্তু এই সেবাগুলোর জন্য তারা পর্যাপ্ত প্রতিদান পাচ্ছে না।”

এই অর্থ ফেইসবুকের লাভের অংকে ‘ছোট প্রভাব’ ফেলতে পারে কিন্তু প্রকাশক আর সাংবাদিকদের ‘উন্নতিতে এটি বড় প্রভাব রাখবে’ বলেও মত দেন অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভুত এই মার্কিনী।

যুক্তরাষ্ট্রে ফক্স নিউজ টিভি চ্যানেলের নিয়ন্ত্রক মারডক আরও বলেন, “পেশাদার সাংবাদিকতার বিনিয়োগ আর সামাজিক মূল্য সত্যিকার অর্থে দেওয়া হয়” এমন সাবস্ক্রিপশন মডেল দেখেননি তিনি। নতুন বিজ্ঞাপনী আয়ের মডেলে গুগল আর ফেইসবুক সিংহভাগ নিয়ে যায়। এই পরিবর্তন সবচেয়ে বেশি মূল সংবাদ মাধ্যম সংবাদপত্রকে ক্ষতিগ্রস্থ করেছে।

মারডক নিউজ কর্পোরেশন-এর নির্বাহী চেয়ারম্যান। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল আর অস্ট্রেলিয়ার কয়েকটি সংবাদপত্র এই প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রতিষ্ঠানটির আয় কমে গেছে আর ২০১৭ অর্থবছরে প্রতিষ্ঠানটির লোকসানের সম্মুখীন হয়েছে।

ফেইসবুক ব্যবহারকারীদেরকেই ‘বিশ্বাসযোগ্যতা’ যাচাই করতে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। “আমরা সত্যের বিচারক হতে চাই না, বিশ্ব আমাদের এমন ভূমিকা চায় এমনটা ভাবিও না।”

মন্তব্য করুন

(বিঃ দ্রঃ আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে) Required fields are marked *

*

Shares