সর্বশেষ সংবাদঃ

প্রবীব বড়ুয়া আহবায়ক, বশিরুল ইসলাম সদস্য সচিব: রামুতে বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপন পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত

খালেদ শহীদ:
রামুতে পহেলা বৈশাখ-বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপন পরিষদ ১৪২৩ বাংলা’র আহ্বায়ক প্রবীর কুমার বড়ুয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

‘আমাদের সংস্কৃতি বিশ্বাস ষোলআনা বাঙ্গালিয়ানায় ঋদ্ধ’ এ প্রতিপাদ্যে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও রামুতে পহেলা বৈশাখ-বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপন করা হবে।

এ আয়োজন সফল করতে বাঙ্গালি পরিচয়ে ঋদ্ধ মানুষদের নিয়ে বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপন পরিষদ ১৪২৪ গঠন করা হয়েছে। এ সভায় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রবীর কুমার বড়ুয়াকে আহ্বায়ক ও সংগীত প্রযোজক বশিরুল ইসলামকে সদস্য সচিব নির্বাচন করে নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়।

সাংস্কৃতিককর্মী তাপস মল্লিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পহেলা বৈশাখ-বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপনের প্রস্তুতি সভা বক্তৃতা করেন, রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক সাধন কুমার দে, রাজনীতিক গোলাম কবির মেম্বার, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রবীর কুমার বড়ুয়া, ধনিরাম বড়ুয়া, প্রবীন শিক্ষক ফরিদ আহমদ, মোহাম্মদ ফারুক, সুশাসনের জন্য নাগরিক ‘সুজন’ রামু উপজেলার সভাপতি মাষ্টার মোহাম্মদ আলম, নাট্যকর্মী আবুল কাশেম, অধ্যাপক পরীক্ষিৎ বড়ুয়া টুটুন, অধ্যাপক নীলোৎপল বড়ুয়া, রায়মোহন সংগীতালয়ের অধ্যক্ষ সোনিয়া বড়ুয়া, দূবার শিল্পী গোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক পুলক বড়ুয়া, শব্দায়ন আবৃত্তি একাডেমী রামু’র উপ পরিচালক মানসী বড়ুয়া, এসেন্স ব্যান্ড অব মিউজিক রামু’র পরিচালক এইচ বি পান্থ, সাংবাদিক খালেদ শহীদ, প্রকাশ সিকদার, চিত্রশিল্পী তানবীর সরওয়ার রানা, সংগীত বড়ুয়া, কন্ঠশিল্পী জয়শ্রী বড়ুয়া, মোহাম্মদ সাহেদ, অসীম বড়ুয়া, সাংস্কৃতিক কর্মী মংকরি বড়ুয়া, সুচিত্রা সরওয়ার সোমা, দিপক বড়ুয়া, অর্পন বড়ুয়া, জয় বড়ুয়া, হুমায়ুন কবির, শিপ্ত বড়ুয়া, আবদুল মান্নান, বিপ্লব ধর, রাসেল দে, কমল শর্মা, নাছির হাছান, মোহাম্মদ রফিক, সাহিদ ফরিদ রায়হান, ওবাইদুল্লাহ প্রমুখ।

সভায় পহেলা বৈশাখ-বাংলা নববর্ষ বরণ উদযাপনে ১৪ এপ্রিল, শুক্রবার রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে সকালে প্রভাতী অনুষ্ঠান, বৈশাখী শোভাযাত্রা, পান্তা ভাতের আসর, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা, আলোচনা সভা, পুরষ্কার বিতরণ ও সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

দিনব্যাপী আয়োজনে চিত্রাংকন, কবিতা আবৃত্তি, দেশের গান, লোক গীতি, বাঙালি সাঁজো ও লোক নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এ প্রতিযোগিতায় ক-বিভাগে প্লে থেকে তৃতীয় শ্রেণী, খ-বিভাগে চতুর্থ শ্রেণী থেকে ষষ্ঠ শ্রেণী ও গ-বিভাগে সপ্তম শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ গ্রহণ করতে পারবে।

মন্তব্য করুন

(বিঃ দ্রঃ আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে) Required fields are marked *

*

Shares