সর্বশেষ সংবাদঃ
User comments

রামুর বিশিষ্ট দানবীর আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানীর ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

সোয়েব সাঈদ:
রামু উপজেলার কৃতিসন্তান, আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা, বিশিষ্ট দানবীর মরহুম আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানীর ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোযা মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে আজ বৃহষ্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকাল নয়টায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান মুফিজ।

তিনি বলেন, শিক্ষার প্রসার, সেবা ও জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ডে আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানীর অবদান রামুবাসী কখনো ভুলে যাবে না। তাঁর মতো অনন্য কর্মকান্ডের অধিকারী ও দানশীল ব্যক্তিত্ব সমাজে বিরল। তিনি মানুষের কল্যাণে নিরলসভাবে ভুমিকা রেখে গেছেন। যার সুফল রামুবাসী যুগ যুগ ধরে ভোগ করছে এবং করে যাবে।

মরহুম ফজল কবির কোম্পানীর বড় ছেলে, আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ সিরাজুল হক এতে সভাপতিত্ব করেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন, আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমানুল হক, সিনিয়র শিক্ষক দানেসুল ইসলাম, বেলাল আহমদ, পুষ্পরানী চক্রবর্তী ও হারুন অর রশিদ, আল ফুয়াদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জুলফিকার আলী ভূট্টো, বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য (সংরক্ষিত) খালেদা বেগম, অভিভাবক সদস্য এনামুল হক, আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া কেজি স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিম প্রমূখ।

বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক সুদর্শন বড়ুয়া ও রমিজ আহমদের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন, নাজমা আকতার, জয়নাব আক্তার, মো. ফাওয়াজ, সাদিয়া আমিন।

আলোচনা সভা শেষে মরহুম আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানীর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

উল্লেখ্য, আজ বৃহষ্পতিবার ছিলো বিশিষ্ট দানবীর মরহুম আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানীর ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী। রামু উপজেলার ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের অফিসেরচর নিবাসী আলহাজ্ব ফজল কবির কোম্পানী ২০০৩ সালের এইদিনে পৃথিবী ছেড়ে চিরবিদায় নেন।

তিনি রামু আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, দারিয়ারদিঘী আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, খুনিয়াপালং আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া ফোরকানিয়া মাদরাসা ও হেফজখানা, রামু আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া কে,জি স্কুল সহ অসংখ্য শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা।

এছাড়াও তিনি রামুর সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ রামু কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা, ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা এবং পরিচালনায় অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছিলেন।

মন্তব্য করুন

(বিঃ দ্রঃ আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে) Required fields are marked *

*

Shares