কুতুবদিয়ায় আ‘লীগের সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি,কুতুবদিয়া।
কুতুবদিয়া নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে উপজেলা আওয়ামীগ ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কুতুবদিয়া উপজেলা কমান্ড সংবাদ সম্মেলন করেছে।

গত শনিবার ২৬ মার্চ দুপুরে বড়ঘোপ বাজারে সভাপতির কার্যালয়ে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে লিখিত বক্তব্য তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরের ঘটনায় গত ১৮ মার্চ কুতুবদিয়া হাইস্কুলে প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে স্মারকলিপি দেয়া হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি দোষীদের বিরুদ্ধে।

২২ মার্চ ইউপি নির্বাচনে প্রায় প্রতিটি কেন্দ্রে নির্বাহী কর্মকর্তা সালেহীন তানভীর গাজী নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে আ‘লীগ নেতা হাজী মো.তাহের সহ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের জেল- জরিমানা দেন। তিনি আরো বলেন স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের অবমূল্যায়ন করা হয়েছে।

নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের গেজেট প্রকাশ ও শপথ নেয়ার আগেই “চেয়ারম্যান ”আখ্যায়িত করে প্রচারণায় উল্লেখ করা হয় বলে বক্তব্যে বলেন সভাপতি। যে কারণে আ‘লীগ ও মুক্তিযোদ্ধারা উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান বর্জন করেন বলে জানান তারা।এমন পরিস্থিতিতে দলীয় কর্মকান্ড ব্যহত হওয়ার দাবি করে নির্বাহী কর্মকর্তাকে ৭ দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করে নেয়ার দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ‘লীগ নেতা হাজী মো.তাহের,মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ,প্রচার ও তথ্য সহকারী মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী,অর্থ সহকারী মুক্তিযোদ্ধা ভোলা নাথ,আ‘লীগ নেতা আবু ইউছুপ মাতবর,মাষ্টার মো.ইউনুছ,শহিদুল ইসলাম লালা,বড়ঘোপ ইউনিয়ন সভাপতি ইউপি সদস্য আবুল কালাম, লেমশীখালী ইউনিয়ন সভাপতি রফিক সিকদার, মো.শাহজাহান, মনির আলম, মন্জু আলম, ছাত্রলীগ নেতা এইচ এম সাজ্জাদ প্রমূখ।