কুতুবদিয়ায় নির্বাচন সুষ্ঠুর লক্ষ্যে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চলছে- ২ জনের কারাদন্ড

এম.এ মান্নান,কুতুবদিয়া।
কুতুবদিয়ায় আসন্ন ইউপি নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে গ্রহনের লক্ষ্যে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চলছে। নির্বাচনে অবৈধ অর্থ বিতরণকালে ২ জনকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

শনিবার ১৯ মার্চ কক্সবাজারের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তুষার আহমেদ এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

সূত্র জানায়,উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নে বিএনপি‘র চেয়ারম্যান প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীকের ফিরোজ খাঁন চৌধুরীর পক্ষে শনিবার নাছির উদ্দিন ও বখতিয়ার আলম নামের দু‘জন সমর্থক অবৈধ অর্থ বিতরণ ও নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা কালে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়। এসময় উভয়কে আটক করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তুষার আহমেদ প্রত্যেককে ২০ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করেন।

একই দিন মোটর সাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মো. আশিক,মহিউদ্দিন ও নজরুল ইসলামকে নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘন করার দায়ে ৭ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করেন আদালত।

এ ছাড়া গত শুক্রবার ভ্রাম্যমান আদালতে আচরণ বিধি লঙ্ঘনে আ‘লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী আজমগীর মাতবর, মেম্বার প্রার্থী হারুনুর রশীদ, মহিউদ্দিন কুতুবী, আক্কাছ উদ্দিন, নুরুল আমিন ও নিজাম উদ্দিন সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ৬ মামলায় ২১ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করেন আদালত।

১৭ মার্চ স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী মুকুলকে ১টি মামলায় ৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত ।

এ দিকে নির্বাচনকে সামনে রেখে গত ১৫ মার্চ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হচ্ছে।

শনিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৫ দিনে বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রার্থীদের আচরণ বিধি লঙ্ঘনের দায়ে ২৯ টি মামলায় মোট ১ লক্ষ ৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তুষার আহমেদ বলেন, ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধে গ্রহনের লক্ষ্যে ভ্রাম্যমান আদালত অব্যাহত আছে এবং আগামী ২৩ মার্চ পর্যন্ত অভিযান পরিচালিত হবে বলে তিনি জানান।