রামুতে সোনাইছড়ি খালে ব্রীজ নির্মাণে মাটি পরীক্ষার কাজ পরিদর্শনে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক,রামু।
‘রামুু উপজেলার প্রত্যন্ত ও অবহেলিত এলাকায় রাস্তা, ঘাট, ব্রীজ, কালভার্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে রামুকে মডেল উপজেলায় রূপান্তরের উদ্যোগ নিয়েছেন বর্তমান সরকার।

এ লক্ষ্যে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল’র নেতৃত্বে ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে’।

গত বুধবার ২ মার্চ উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের মনিরঝিল এলাকার বহু প্রতিক্ষিত সোনাইছড়ি খালে ব্রীজ নির্মাণের মাটি পরীক্ষার কাজ পরিদর্শনকালে রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম এসব কথা বলেন।এসময় তিনি আরো বলেন, উন্নয়নের মাধ্যমে রামুকে মডেল উপজেলায় রূপান্তর করা হবে।

সকাল ১০টায় ব্রীজের মাটি পরীক্ষার কাজ পরিদর্শন কালে কাউয়ারখোপের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক শামশুল আলম, রামু উপজেলা এলজিইডির উপ-সহকারি প্রকৌশলী আবুচ উদ্দিন, কাউয়ারখোপ আওয়ামীলীগের আহবায়ক মোহাম্মদ হোছন মেম্বার, রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, স্থানীয় প্রাবন্ধিক ও কবি এম. সুলতান আহমদ মনিরী, আলহাজ্ব রমিজ আহমদ, তৈয়ব উদ্দিন সিরাজ মেম্বার, জহির উদ্দিন মেম্বার, মফিজ সওদাগর, বদর মিয়া, হাবিব উল্লাহ সওদাগর, আব্দুল মালেক, মনছুর, শাহ আলম, সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

রামু উপজেলা এলজিইডির সহকারি প্রকৌশলী আবুচ উদ্দিন জানান, ৩০ মিটার দৈর্ঘ্য সোনাইছড়ি খালের উপর নির্মিতব্য ব্রীজের মাটি পরীক্ষার পর পরিমাপ পূর্বক দরপত্র আহবানের মাধ্যমে শীঘ্রই ব্রীজ নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

মনিরঝিল গ্রামের প্রবীন বাসিন্দা, অবসরপ্রাপ্ত প্রাইমারী শিক্ষক কবি এম. সুলতান আহমদ মনিরী জানান, মনিরঝিলবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি ছিলো সোনাইছড়ি খালের উপর একটি ব্রীজ নির্মাণ, আজ এ দাবি পুরণ হওয়ার পথে। ব্রীজটি নির্মিত হলে রামুর শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত মনিরঝিল গ্রামের উৎপাদিত শস্য অল্প সময়ের মধ্যে কৃষকরা রামুর ফকিরা বাজারসহ কক্সবাজারের বিভিন্ন বাজারে পৌঁছাতে পারবে।

এছাড়া ব্রীজ নির্মাণের ফলে পার্শ্ববর্তী পার্বত্য নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দারাও ব্যাপক উপকৃত হবেন।